অবরোধ না থাকলে পাসের হার আরো বাড়ত: প্রধানমন্ত্রী

0

বিএনপি-জামায়াতের হরতাল-অবরোধের কারণে এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হার কমেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার সকাল ১০টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে এবারের ফলাফল হস্তান্তর করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

এ সময় বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এরপর প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘হরতাল-অবরোধ না থাকলে এবং পরীক্ষার সময় বারবার না বদলাতে হলে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষায় (এসএসসি) পাসের হার আরো বাড়ত।’

রাজনৈতিক সহিংসতার কারণে প্রতিকূল অবস্থায় পরীক্ষা দিয়েও পাসের হার এত বেশি হওয়ায় শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানান তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিকূল অবস্থায়ও এত পাসের হার কম কথা নয়। একটু সুন্দর পরিবেশ পেলে শিক্ষার্থীরা অবশ্যই পরীক্ষায় পাস করবে বলে তিনি আশা করেন।

এ সময় প্রত্যেক জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলা সরকারের লক্ষ্য বলে আবারো জানান প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ছেলেমেয়েরা যাতে ঘরের কাছে উচ্চশিক্ষা নিতে পারে, সরকার সেই সুযোগই সৃষ্টি করতে চায়।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘কোনো জাতিকে উন্নত হতে হলে শিক্ষিত হতে হবে। শিক্ষা ছাড়া কোনো জাতি দারিদ্র্যমুক্ত হতে পারবে না।’

কারিগরি শিক্ষা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মন্তব্য করে তিনি বলেন, শিক্ষাগ্রহণ করে বসে থাকলে হবে না। কাজে লাগাতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিকূলতার মধ্যেও ২০১৪ ও ২০১৫ সালে সময়মতো শিক্ষার্থীদের কাছে অনেকটা গেরিলা কায়দায় আমরা বই পৌঁছে দিয়েছি।

তিনি বলেন, সরকার বিজ্ঞান শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছে। এ কারণে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলা হয়েছে।

শিক্ষার উন্নয়নে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেওয়া পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, ‘একটি জাতি গঠনে শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। মেয়েদের শিক্ষাকে অবৈতনিক করেছিলেন, দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করেছিলেন। তিনি জানতেন শিক্ষা নিশ্চিত করতে পারলেই একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ গঠন করা যাবে।’

সেই উদ্যোগের ধারাবাহিকতা বজায় রেখেই তার সরকার শিক্ষার উন্নয়নে কাজ করছে বলেও জানান তিনি।

Share.

Leave A Reply