‘গণজাগরণ মঞ্চ ষড়যন্ত্রকারীদের অংশ’

0

যুদ্ধাপরাধী দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ফাঁসি মওকুফ করে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেয়ায় গণজাগরণ মঞ্চের পক্ষ থেকে তোলা আঁতাতের অভিযোগের জবাবে উল্টো তাদেরকেই ষড়যন্ত্রকারী বললেন আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মহানগর আ.লীগের হরতাল বিরোধী অবস্থানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মায়া বলেন, ‘আঁতাত শব্দটি আওয়ামী লীগের ডিকশনারিতে নেই। যারা আঁতাতের কথা বলে তারা ষড়যন্ত্রকারীদের একটি অংশ। আওয়ামী লীগ আঁতাতের রাজনীতি করে না।’

তিনি বলেন, ‘আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সাঈদীর মৃত্যুদণ্ড থেকে কারাদণ্ডের রায় মেনে নিতে পারি না। দেশের মানুষ হতাশ হয়েছে। তবে যেহেতু এটি সর্বোচ্চ আদালতের রায় তাই এ রায় আমরা মেনে নিচ্ছি।’

জামায়াত-শিবিরের হরতাল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এ হরতাল জামায়াতের পিঠ বাঁচানোর হরতাল।’

একই সঙ্গে একে আনন্দের হরতাল বলেও অভিহিত করেন তিনি।

মায়া দাবি করেন, ‘ঢাকাসহ সারাদেশে কোথাও কোনো হরতাল হচ্ছে না। ভবিষ্যতে জামায়াত-শিবির আর মাথাচাড়া দিতে পারবে না। হরতালও করতে পারবে না।’

হরতাল বিরোধী অবস্থানে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমএ আজিজ, সহ-সভাপতি ফয়েজউদ্দিন মিয়া, মুকুল চৌধুরীসহ স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার সাঈদীর মৃত্যুদণ্ড মওকুফ করে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেন অঅপিল বিভাগ। রায়ের পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার। প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ‘এই রায় গ্রহণযোগ্য নয়। জামায়াতের সঙ্গে আঁতাত করেই এই রায় দেয়া হয়েছে।

এদিকে, আমৃত্যু কারাদণ্ডের প্রতিবাদে জামায়াত আজ বৃহস্পতিবার ও আগামী রোববার হরতালের ডাক দিয়েছে। সেই হরতালের প্রথমদিন অতিবাহিত হচ্ছে। ঢাকাসহ সারাদেশেই বিচ্ছিন্ন সহিংসতার খবর পাওয়া যাচ্ছে। দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

Share.

Leave A Reply