প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

0

দৈনিক আজকের জীবন, দৈনিক কুমিল্লার আলো, কুমিল্লার বার্তা ডটকম, দৈনিক বাংলার আলোড়নসহ গত কয়েক দিন থেকে বিভিন্ন তারিখে নানা সংবাদপত্রে “নাঙ্গলকোট প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দূর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন নাঙ্গলকোট উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো: নবীর উদ্দিন।

এক প্রতিবাদ লিপিতে তিনি উল্লেখ করেন, তার বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদটি সম্পন্ন মিথ্যা,ভূয়া,বানোয়াট,উদ্দেশ্যমূলক ও ভিত্তিহীন।

প্রকৃত ঘটনা হল: ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে স্থানীয় চহিদার আলোকে নাঙ্গলকোট উপজেলা প্রকৌশলী কর্তৃক ৮ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির মাধ্যমে বিদ্যালয় মেরামত কাজ সম্পন্ন করে।

বিদ্যালয় সমূহে কেবল রংয়ের কাজের জন্য এককভাবে কোন বরাদ্দ প্রদান করা হয়নি, বরং আসবাবপত্র,বিদ্যালয় মেরামত এ বরাদ্দের অন্তর্ভূক্ত ছিল।

বিদ্যালয় ব্যবস্থপনা কমিটি কর্তৃক বাস্তবায়িত উক্ত মেরামত কাজ স্থানীয় সরকার কর্তৃক সুপারভিশন করা হয়। উপজেলা প্রকৌশলী কর্তৃক যথাযথভাবে কাজ সম্পন্নের প্রত্যয়ন পাওয়ার পরই কেবল আয়ন-ব্যয়ন কর্মকর্তা বিল পরিশোধ করা হয়েছে। আমি উক্ত বিদ্যালয় সমূহের মেরামত কাজের বাস্তবায়নকারী, গুনগতমান নির্ধারক কিংবা আয়ন-ব্যয়ন কর্মকর্তা নহে। ফলে আমার পক্ষে দূর্নীতি ও অনিয়ম করার কোন সুযোগ নাই।

এছাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ মন্ত্রালয়ের একটি সুনির্দিষ্ট নীতিমালার ভিত্তিতে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার/বিভাগীয় উপপরিচালক এর অনুমতি নিয়ে বদলি হয়ে থাকেন। নীতিমালা ভঙ্গকরে শিক্ষকদের ইচ্ছামত বদলি করার আমার কোন সুযোগ নেই এবং আমি করি নাই। তাই শিক্ষক বদলির বিষয়ে কোন সুনির্দিষ্ট তথ্য না দিয়ে আমার বিরুদ্ধে উৎকোচ দিয়ে শিক্ষক বদলি সংবাদটি বানোয়াট ও ভিত্তিহীন।

আমি উক্ত মিথ্যা, ভূয়া, বানোয়াট,উদ্দেশ্যমূলক প্রকাশিত সংবাদটির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

Share.

Leave A Reply