ফুলগাজীর উপ-নির্বাচন: কেন্দ্র ফাঁকা, মিনিটে ৫ ভোট!

0

বহুল আলোচিত ফেনীর ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনের রোববার সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ চলছে।

সরকার দলীয় প্রার্থীর পক্ষে তার সমর্থকরা জাল ভোট দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সকাল ১০টা পর্যন্ত জেলার প্রায় সব কেন্দ্রে ছিল না ভোটারদের লাইন। তার পরেও অধিকাংশ কেন্দ্রে মিনিটে ৫ ভোট পড়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সকালে কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, বন্দুয়া দৌলতপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সরকার দলীয় প্রার্থী ফুলগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলিম মজুমদারের (দোয়াত কলম) সমর্থকরা পুরুষ বুথের ৫নং কক্ষে ৩৬টি ব্যালট পেপার ছিনতাই করেছে।

ওই বুথের সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার নুরুল করিম জানান, সরকার দলের সমর্থকরা তার থেকে জোর করে মুড়িসহ ৩৬টি ব্যালট নিয়ে গেছে।

এ ছাড়া ৮টি বুথে ২০ মিনিটে ৮০০ টি ভোটগ্রহণ হয়েছে।

প্রিসাইডিং অফিসার মো.ওহিদুল ইসলাম জানান, কীভাবে এত ভোটগ্রহণ হয়েছে তার জানা নেই। ছিনতাইকৃত ব্যালট পেপার বাতিল করা হবে কি-না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি কিছু বলতে রাজি হননি।

তবে এসময় প্রিসাইডিং অফিসারকে ছাত্রলীগের স্থানীয় নেতা নাজিম উদ্দিনের সঙ্গে খোশ গল্প করতে দেখা গেছে।

এছাড়া হাসানপুর শাহ আলম কলেজ, আনন্দপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আলী আজম স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্র, কমুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সকাল ১০টা পর্যন্ত একশ ভোটগ্রহণ হয়নি।

ভোটকেন্দ্র পর্যবেক্ষণে আসা জেলা প্রশাসক মো.হুমায়ুন কবীর খোন্দকার জানান, শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। আবহাওয়া খারাপের কারণে ভোটার উপস্থিতি কম।

শনিবার রিটার্নিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো.এনামুল হক সবগুলো কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ বলে ঘোষণা করেন।

সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও ফুলগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহিদুর রহমান জানান, মোট ভোটার সংখ্যা ৭৬,৭৮০। নির্বাচনে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ১ প্লাটুন বিজিবি (৩৫জন), এক প্লাটুন র‌্যাব ও প্রত্যেক কেন্দ্রে ৭জন করে স্বশস্ত্র পুলিশ থাকবে।

নির্বাচনে তিন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ফুলগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলিম মজুমদারের (দোয়াত কলম), সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সেলিম (কাপ-পিরিছ)। এছাড়া বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী জেলা তাঁতি দলের সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী মিনারের আানারস প্রতিকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনি একরাম হত্যা মামলার এজহারভূক্ত প্রধান আসামি। বর্তমানে পুলিশী হেফাজতে চিকিৎসাধীন আছেন।

প্রসঙ্গত গত ২০মে সকাল ১১ টায় ফুলগাজী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি একরামুল হক একরামকে ফেনী শহরের একাডেমি এলাকার বিলাসী সিনেমা হলের সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে দিনদুপুরে গুলি ও আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করে। এরপর থেকে উপজেলা চেয়ারম্যান পদটি শূন্য হয়ে যায়।

Share.

Leave A Reply