বাংলাদেশে আটক আইএস সদস্য কোকা-কোলার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা

0

জঙ্গিগোষ্ঠি ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সদস্য সন্দেহে বাংলাদেশে আটক দুজনের একজন বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান কোকো-কোলার কর্মকর্তা।

তার নাম আমিনুল ইসলাম বেগ (৩৮)। তিনি কোকা-কোলার আইটি প্রধান এবং বাংলাদেশে আইএসের সমন্বয়কারী হিসেবে কাজ করতেন।

মঙ্গলবার কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বাংলাদেশের পুলিশ কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এসব তথ্য প্রকাশ করেছে।

উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার আমিনুল বেগ ও সাকিব বিন কামালকে রাজধানী থেকে আটক করে ডিবি। এরপর আদালতের মাধ্যমে তাদের তিন দিন করে রিমান্ডে নিয়েছে ডিবি।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম-কমিশনার মনিরুল ইসলাম ফোনে নিউ ইয়র্কভিত্তিক ব্লুমবার্গকে জানান, আমিনুল ইসলাম বেগ এর আগে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির আঞ্চলিক সমন্বয়কারী ছিলেন। আটক আরেকজন ঢাকার স্কুলে শিক্ষকতা করতেন।

কোকা-কোলার স্থানীয় বোতলজাত কোম্পানি ইন্টারন্যাশনাল বেভারেজেস প্রাইভেট লিমিটেড ই-মেইলের পাঠানোর বিবৃতিতে বিষয়টি ব্লুমবার্গকে নিশ্চিত করেছে।

এতে বলা হয়েছে, যখন দরকার হবে তখনই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে এ বিষয়ে কোকো-কোলা কর্তৃপক্ষ সহায়তা করবে।

ঢাকার গোয়েন্দা পুলিশের কর্মকর্তা শেখ নাজমুল আলমের বরাত দিয়ে অস্ট্রেলিয়াভিত্তিক সিডনি মর্নিং হেরাল্ড জানিয়েছে, আটক আমিনুল ইসলাম একটি বহুজাতিক কোম্পানির (ইন্টারন্যাশনাল বেভারেজেস প্রাইভেট লিমিটেড) আইটি প্রধান ছিলেন। তিনি জঙ্গিগোষ্ঠি আইএসের আঞ্চলিক সমন্বয়কারীর দায়িত্বে ছিলেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইন্টারন্যাশনাল বেভারেজেস প্রাইভেট লিমিটেডের এক সূত্রের বরাত দিয়ে পত্রিকাটি জানায়, তিনি কোম্পানির আইটি প্রধান ছিলেন। বেশ কয়েকদিন তিনি কর্মস্থলে ছিলেন না।

গোয়েন্দা পুলিশ কমর্কর্তা শেখ নাজমুল আলম জানান, আটক দুজন বাংলাদেশের ২৫ ছাত্রকে আইএসে যোগ দেওয়ার চক্রান্ত করছিলেন।

সিডনি মর্নিং হেরাল্ড জানিয়েছে, চলতি মাসে আইএসের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে বাংলাদেশে অন্তত ১২ জনকে আটক করেছে নিরাপত্তা বাহিনী।

বাংলাদেশে ৯০ শতাংশ মুসলিমের বসবাস। ইতোমধ্যে মার্কিন নাগরিক অভিজিৎসহ দেশটিতে তিনজন ধর্মনিরপেক্ষ ব্লগার খুন হয়েছেন। এসব ঘটনার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিম, যে কারণে সোমবার সংগঠনটি নিষিদ্ধ করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

Share.

Leave A Reply